Logo
শিরোনাম :
গৃহবধূকে ধর্ষণের পর ভিডিও ধারণ করে বিক্রি: প্রধান আসামি গ্রেপ্তার প্রতিবন্ধী কিশোরীকে গণধর্ষণ, আটক ৪ ভাসানচর নিয়ে ভুল বুঝতে পেরেছে রোহিঙ্গারা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঈদগাঁওতে সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা…. বহিরাগত কেউ এসে ঈদগাঁওর শান্ত পরিবেশকে অশান্ত করে যাবে, এটি আমরা চাইনা দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্ন “ঈদগাঁও থানা” উদ্বোধন কাল গোমাতলীতে সমাজ কল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে তাফসীরুল কোরআন মাহফিল সম্পন্ন উখিয়ায় বন বিভাগের উচ্ছেদ অভিযানে একএকর বনভুমি উদ্ধার জালালাবাদ চেয়ারম্যান রাশেদের উপর হামলা, বিক্ষোভ সমাবেশ কাল ঈদগাঁওর সংবাদকর্মী সাগর অসুস্থ : দোয়া কামনা উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুনে পুড়লো ৪টি শিশু শিক্ষা কেন্দ্র

ইট ভাটায় ভারী যানবাহন চলাচল , উখিয়ায় গ্রামীণ সড়কের অস্থিত্ব সংকটাপন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ / ৭৫ বার
আপডেট সময় : বুধবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২০

অস্থিত্ব সংকটাপন্ন উখিয়ার বিভিন্ন গ্রামীন সড়কের বেহাল অবস্থার কারণে স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসাগামী ছাত্র-ছাত্রী তথা স্থানীয় জনসাধারণকে পোহাতে হচ্ছে অসহনীয় দূর্ভোগ। ছোটখাট যানবাহন ও পথচারী চলাচলের জন্য নির্মিত সড়কে ইট ভাটার ভারী যানবাহন চলাচলের ফলে সড়কের কার্পেটিং উঠে গিয়ে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্তের। এসব গর্ত প্রায় সময় পানিতে পরিপূর্ণ থাকায় বড় ধরনের সড়ক দূর্ঘটনায় প্রাণহানির আশংকা করে এলাকাবাসী সড়কটি দ্রুত সংস্কারের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি জোরালো দাবী জানিয়েছেন।

সরেজমিন উখিয়া ও নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম ইউনিয়নে যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম রাজাপালং ইউনিয়নের কুতুপালং পূর্বপাড়া সংযোগ সড়ক ঘুরে স্থানীয় ভুক্তভোগীদের কথা বলে জানা গেছে, কুতুপালং প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে কুতুপালং পূর্বপাড়া, পিএফ পাড়া, হাঙ্গরঘোনা, শীলপাড়া, বড়বিল, আজুখাইয়া, রেজু বিজিবি ক্যাম্প এর সাথে যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম এ সড়কটি কার্পেটিংয়ের আওতায় আনা হয়েছিল আট বছর আগে।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী পায়েল বড়ুয়া তপু জানান, বৃহত্তর রাজাপালং ও নাইক্ষ্যংছড়ি এলাকায় উৎপাদিত পণ্য সামগ্রী এ সড়ক দিয়ে উখিয়া, কুতুপালং সহ বিভিন্ন হাটবাজারে বাজারজাত করা হয়। ভারী যানবাহন চলাচলের কারণে সড়কটি এখন আতংকের জনপদে পরিণত হয়েছে।

কুতুপালং উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্রী সাজু বড়ুয়া জানান, তারা ইতিপূর্বে রিক্সা, সিএনজি ও টমটমে করে স্কুলে আসা যাওয়া করতো। বর্তমানে সড়কটির বিভিন্ন স্থানে খানা খন্দকের সৃষ্টি হওয়ায় যানবাহন চলাচল করতে পারছেনা বিধায় তাদেরকে হেঁটে স্কুলে যেতে হচ্ছে। যা নিয়ে মানসিক অশান্তির কারণ হয়ে দাঁডিয়েছে। একই স্কুলের ১০ম শ্রেণির ছাত্র মোঃ শাকিল জানায়, তারা বিদ্যালয়ের পোশাক পড়ে স্কুলে যেতে পারছে না। বিস্তৃর্ণ ভাঙ্গাচোরা সড়ক কাদাঁয় পরিপূর্ণ থাকার কারণে তাদের পোশাক গুলো ভিজে লন্ডভন্ড হয়ে যায়।

কুতুপালং কমিউনিটি ক্লিনিকে দায়িত্বরত কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার অজিত কুমার বড়ুয়া জানায়, বিস্তৃর্ণ এলাকার প্রসূতি ও মুর্মুষ রোগীদের হাসপাতালে আনা নেওয়ার ক্ষেত্রে জটিলতার কারণে উন্নত চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। চিকিৎসার অভাব জনিত কারণে অনেক গরীব রোগী অকালে প্রাণ হারাচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এছাড়াও বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী অধ্যুষিত এলাকা কুতুপালং ধর্মাংকুর বৌদ্ধ বিহারে যাতায়তের একমাত্র মাধ্যম এ সড়কটি অচলাবস্থার সৃষ্টি হওয়ার কারণে ধর্ম ভীরু বৌদ্ধ সম্প্রদায় তাদের কাঙ্খিত উপসনায় থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বলে কুতুপালং উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক দীপন বড়ুয়া জানিয়েছেন।

রাজাপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী সড়কটির বেহাল অবস্থার কারণে জনগণকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে বলে স্বীকার করে বলেন, এ সড়কটি সংস্কারের আওতায় আনার জন্য প্রয়োজনীয় আনুসাঙ্গিক কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়েছে। বরাদ্ধ এলেই কাজ শুরু করা হবে।

উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী জানান, কুতুপালং পূর্ব পাড়াসহ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গ্রামীণ জনপদের অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে সাম্প্রতিক সময়ে উখিয়ার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া লাগাতার ভারী বর্ষণে। বর্ষণ পরবর্তী সড়কের ক্ষয়ক্ষতির বিবরণীসহ একটি পরিপত্র উপজেলা প্রশাসনের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর