Logo
শিরোনাম :
শান্তিপূর্ণ ভাবে রাজাপালং ৯নং ওয়ার্ডের নির্বাচন সম্পন্ন পিতার আসনে ছেলে হেলাল উদ্দিন বিজয়ী  চকরিয়ায় কীটনাশক পানে পলিটেকনিক ছাত্রের আত্মহত্যা ব্যবসায়ীদের ক্ষোভ….. ঈদগাঁও বাজারে মলকান্ড : জনদূূর্ভোগ চরমে কক্সবাজারে নৌকা ভ্রমণে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন দুই বন্ধু রামুতে ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী ও বাঁক প্রতিবন্ধী নারী ধর্ষণের শিকার টেকনাফে অস্ত্র ও ইয়াবাসহ আটক ১ টেকনাফে ১০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল ধ্বংস দুর্নীতির মামলায় অধ্যক্ষ আব্দুর রহমানকে জেল হাজতে পাঠিয়েছে আদালত ঢাকা- নওগাঁ উপ-নির্বাচনের ফলাফল প্রত‌্যাখান করে বান্দরবান জেলা বিএনপির প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ পেকুয়ায় বড় ভাই ছোট ভাইকে কামড়িয়ে আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন

দারুণ জয়ে সমতায় সিরিজ শেষ করল পাকিস্তান

ক্রীড়া ডেস্ক / ৩৩ বার
আপডেট সময় : বুধবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২০

মঈন আলীর ব্যাটিং ঝড়ে হাতের মুঠো থেকে ম্যাচটা ফসকেই যাচ্ছিল পাকিস্তানের। শেষ বলে দুই ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল ১২ রান। ছয় মেরে পাকিস্তানি সমর্থকদের ভয় পাইয়ে দিয়েছিলেন টম কারান। তবে শেষ বলে প্রয়োজনীয় ছক্কাটা আর মারতে পারেননি তিনি। ৫ রানে ম্যাচ জিতে টি ২০ সিরিজ ১-১ সমতায় শেষ করল বাবর আজমের দল। পাকিস্তানের ১৯০ রানের জবাবে ১৮৫ রানেই থামে স্বাগতিকরা।

এদিন অবশ্য জবাব দিতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি ইংল্যান্ডের । কোন রান না করেই আউট হয়ে যান জনি বেয়ারস্টো। দলীয় ২৬ রানে ফিরে যান ডেভিড মালানও। তার ব্যাট থেকে আসে ৭ রান। আগের ম্যাচে জয়ের নায়ক অধিনায়ক ইয়ন মরগানও ফিরে যান অল্প রান করে। ১০ রান করা মরগান ফেরেন রান আউট হয়ে। প্রান্ত আগলে রেখে ব্যাট করে যাওয়া টম ব্যান্টনও ফিরে গেলে বিপদে পড়ে স্বাগতিকরা। ৩১ বলে ৪৬ রান করেন তিনি। তাকে ফেরান হারিস রউফ। তবে স্যাম বিলিংসকে নিয়ে দারুণ প্রতিরোধ গড়ে তোলেন মঈন আলী। ২৬ রান করে বিলিংস ফিরলে ভাঙে এ জুটি। তখন ইংল্যান্ডের রান ১২৬। অবশ্য মঈন ছিলেন অবিচল। ইংল্যান্ডের জয়ের স্বপ্নও উজ্জ্বল করে তোলেন তিনি। তবে শেষ দিকে ৩৩ বলে ৬১ রান করে মঈন ফিরে গেলে ইংল্যান্ডের জয়ও অধরা থেকে যায়। পাকিস্তানের হয়ে ২ টি করে উইকেট নেন শাহিন শাহ আফ্রিদি ও ওয়াহাব রিয়াজ।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতে ফখর জামানকে হারায় পাকিস্তান। ১ রান করে ফেরেন তিনি। দলীয় ৩২ রানে ফিরেন বাবর আজম। তিনি করেন ২১ রান। তবে অভিষিক্ত হায়দার আলী ও অভিজ্ঞ মোহাম্মদ হাফিজের ব্যাটিং ঝড়ে বড় সংগ্রহের ভিত পায় পাকিস্তান। নজরকাড়া ব্যাটিংয়ে হায়দার করেন ৩৩ বলে ৫৪ রান। হাফিজ অপরাজিত থাকেন ৮৬ রানে। পাকিস্তান থামে ৪ উইকেটে ১৯০ রানে। ম্যাচ ও সিরিজ সেরা হয়েছেন হাফিজ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর