Logo
শিরোনাম :
পাউরুটি কিনে দিয়ে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা মুক্তি চাইলেন ধর্ষিতা, কারাফটকে বিয়ের নির্দেশ কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে ৩৬৫ জনের নমুনা টেস্টে ৪৬ জন করোনা পজেটিভ শারদীয় দূর্গাপুজা উপলক্ষে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের যুবলীগ সভাপতি ছৈয়দুল বশরের শুভেচ্ছা সকল অপশ‌ক্তি‌কে ক‌ঠোর হা‌তে দমন কর‌ছেন শেখ হা‌সিনা : রেজাউল ক‌রিম চৌধুরী চাচিকে ধর্ষণ: যুবলীগ নেতার ৪ দিনের রিমান্ড চাঁপাই নবাবগন্জের গোমস্তাপুর অটোর ধাক্কায় শিশুর মৃত্যু শিক্ষকের মৃত্যুে নয়াবাজার উচ্চ বিদ্যালয় এসএসসি ২০১৮ ব্যাচের শোক প্রকাশ ঈদগাঁওতে ছাত্রলীগের সভায় বক্তারা…. ঐক্যবদ্ব থেকে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার আহবান প্রশিক্ষণ ও লাইসেন্সবিহীন কোন গাড়ি চালক সড়কে থাকবে না

কাঁচামরিচ কেনা দায়, পিঁয়াজ-আদার দামও বেড়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ / ৩৭ বার
আপডেট সময় : শুক্রবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

বাজারে বেড়েছে কাঁচামরিচের দাম। সপ্তাহের ব্যবধানে নিত্যপ্রয়োজনীয় এ পণ্যের দাম বেড়ে প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকায়। একই সঙ্গে বেড়েছে বেশিরভাগ সবজির দাম।
শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) চকবাজার, রিয়াজ উদ্দিন বাজার ও কাজীর দেউড়ি কাঁচাবাজার ঘুরে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

দেশের বিভিন্ন জেলায় বন্যা ও টানা বৃষ্টির কারণে অনেক সবজির জমি নষ্ট হয়ে গেছে। ফলে হঠাৎ করে কাঁচামরিচসহ অন্যান্য সবজির দাম এমন অস্বাভাবিক বেড়েছে বলে অভিমত ব্যবসায়ীদের। তবে ক্রেতাদের অভিযোগ, কার্যকরী বাজার তদারকি ব্যবস্থা না থাকায় হঠাৎ পণ্যের দাম বেড়ে যাচ্ছে। এতে এক শ্রেণির ব্যবসায়ী লাভবান হলেও বেকায়দায় পড়েছেন নিম্নআয়ের মানুষ।

বাজারে প্রতিকেজি তবে টমেটো ১২০ টাকা, আলু ৩৫ টাকা, কাঁকরোল ৪০ টাকা, পটল ৬০ টাকা, ঢেঁড়শ ৫০ টাকা, ঝিঙ্গে ৪০ টাকা, শসা ৪০ টাকা, গাজর ৬০ টাকা, বেগুন ৮০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ৪০ টাকা, বরবটি ৬০ টাকা, লাউ ৪০ টাকা, মুলা ৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

বেড়েছে পিঁয়াজ ও আদার দাম। আদা ২২০ টাকা, পিঁয়াজ ৪৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। চকবাজারের খুচরা ব্যবসায়ী সালমান আলী বলেন, গত সপ্তাহে পিঁয়াজের দাম ছিল ৩৫ টাকা। সরবরাহ কম থাকায় কেজিতে ১০ টাকা বেড়েছে। এছাড়া আদার দাম বেড়েছে কেজিপ্রতি ২০ টাকা। মূলত পাইকারিতে দাম বাড়লে আমরাও দাম বাড়াই। আর কমলে আমরাও কম দামে বিক্রি করি।

এদিকে গত কয়েকদিন ধরে বাজারে প্রচুর পরিমাণে ইলিশ আসছে। বিক্রিও হচ্ছে বেশ। তুলনামূলক কম দামে ইলিশ কিরতে পারায় খুশি ক্রেতারাও। ২০০-৬০০ টাকায় মিলছে রুপালী ইলিশ।

খুচরা বাজারে তেলাপিয়া মাছ বিক্রি হচ্ছে ১৪০ থেকে ১৬০ টাকা, কার্প ২৫০ টাকা, রুই মাছ ২৮০ থেকে ৩০০ টাকা, কাতাল ৩০০ থেকে ৩৫০ টাকা, পাবদা ৩০০-৩৫০ টাকা, লইট্যা ৮০-১০০ টাকা, চিংড়ি ২০০-৫০০ টাকা, পাঙ্গাশ ১০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

উচ্চমূল্যের বাজারে একটু স্বস্তি দিয়েছে মাংসের দাম। ব্রয়লার মুরগি গত সপ্তাহের মতো ১২০ টাকা, সোনালী মুরগি ২৬০ টাকা, পাকিস্তানি লেয়ার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২৩০ টাকায়। গরু ও খাসির মাংসের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। ডিম প্রতি ডজন বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর