Logo
শিরোনাম :
চাঁপাই নবাবগন্জের ভোলাহাটে বর বদল তুমব্রু দুর্গা মন্দির পরিচালনা কমিটি কর্তৃক সংবর্ধিত নব-নির্বাচিত ইউপি সদস‌্য ইঞ্জিনিয়ার হেলাল উদ্দিন চাঁপাইনবাবগঞ্জে র‌্যাবের অভিযানে ১০ মাদক সেবী আটক টেকনাফে র‍্যাবের পৃথক অভিযানে কোটি টাকার ইয়াবা উদ্ধার উঠে গেছে সংকেত, কক্সবাজার ফিরতে পারেন সেন্টমার্টিনে আটকা পর্যটকরা চকরিয়া থানায় হঠাৎ পরিদর্শনে চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন ফাতির পায়ে এল ক্লাসিকোতে বার্সার ‘৪০০’ ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের বর্ণাঢ্য জীবন ছাত্রীকে ‘ধর্ষণ’, পালিয়েও রক্ষা হলো না মাদ্রাসা সুপারের ফেসবুকে মাদ্রাসাছাত্রীর ‘বিকৃত ছবি’ প্রকাশঃআটক-২

অস্ত্রসহ আটক দিদার আবারও ইয়াবাসহ আটক

কক্সবাজার প্রতিনিধি।  / ২৯ বার
আপডেট সময় : সোমবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০

কক্সবাজারে বন্দুকসহ আটকের পর কারাগার থেকে বের হয়ে এবার চট্টগ্রামের কর্ণফুলীর শিকলবাহা এলাকায় ১৩ হাজার ৬৭০ পিস ইয়াবা নিয়ে কক্সবাজার ঝিলংজা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা ও ককসবাজার জেলা মটর শ্রমিকলীগ সভাপতি এলাকার আলোচিত দিদার সহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব।সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) ভোরে শিকলবাহা ক্রসিং এলাকার হোটেল জামাল শাহ রেষ্টুরেন্ট এন্ড বিরানী হাউজ সামনে চেকপোস্ট স্থাপন করে গাড়ি তল্লাশিতে ১টি প্রাইভেটকার ও ১টি মাইক্রোবাস থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা ইউনিয়নের পূর্ব মোক্তারকুল এলাকার মৃত দানু মিয়ার ছেলে মো. দিদারুল আলম (৪৮), একই এলাকার করলিয়ার মৃত সামছুল হকের ছেলে মো. জাহিদুল ইসলাম (১৮) ও মো. আমজাদ উল্ল্যাহ’র ছেলে মো. সোয়েব (২২)।

র‌্যাব জানায়, তাদের কাছ থেকে প্রাইভেটকার ও মাইক্রোবাসের যাত্রী সিটের নিচে বিশেষ কায়দায় লুকানো অবস্থায় ১৩ হাজার ৬৭০ পিস ইয়াবা উদ্ধারসহ আসামিদের আটক করা হয়। এসময় ইয়াবা পরিবহনে ব্যবহৃত প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্টো-গ ১১-৪৯২৪) এবং মাইক্রোবাস (চট্ট-মেট্টো-চ- ১১-৫২৫২) জব্দ করা হয়।

আটককৃত আসামি এবং উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কর্ণফুলী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

প্রসঙ্গগত, ২০১৯ সালের ৩০ ডিসেম্বর চিহ্নিত ইয়াবা কারবারি দিদারুল আলমকে (৪০) অস্ত্র ও ইয়াবাসহ আটক করেছিল কক্সবাজার সদর থানা পুলিশ।

সদর থানার এস আই প্রদীপ চন্দ্র দে কলাতলী বাইপাস এলাকা থেকে তাকে আটক করেছিল। আটকের সময় তার কাছে পাওয়া যায় তিনশো পিস ইয়াবা। এসময় দেশীয় তৈরি বন্দুক ও কার্তুজ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই সময় তার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট ধারায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

আদালত থেকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছিল আলোচিত এই দিদারকে। দীর্ঘ কয়েক মাস কারাগারে ছিল দিদার। এরপর জামিনে বের হয়ে ফের ইয়াবা কারবারি জড়িয়ে পড়ে। অবশেষে এবার র‌্যাবের কাছে সহযোগিসহ আটক হলো দিদার।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর