Logo

সৌদি আরবের তায়েব শহরে আরসার অস্ত্রসহ ৩০ ক্যাডার গ্রেফতার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আরসার অস্ত্রের জোগান দাতা কারা?

মুহাম্মদ হানিফ আজাদ / ৬৭ বার
আপডেট সময় : শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২০

রোহিঙ্গা ক্যাম্প ভিত্তিক গড়ে উঠা সশস্ত্র রোহিঙ্গা বিদ্রোহী সংগঠন ‘আরসার’ জোগান দাতা কারা? এমন প্রশ্ন সচেতন মহলের। এর পেছনে খোঁজ খবর নিতে গিয়ে দেখা যায়, উখিয়া-টেকনাফে ৩৪টি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে রয়েছে আরসার শক্ত অবস্থান। বুধবার গভীর রাতে আরসার প্রেসিডেন্ট আতাউল্লার ছোট ভাই মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ ৩০ জন ক্যাডার নিয়ে টেনিং নেওয়ার সময় সৌদি আরবের তায়েব শহরে আটক হয়েছে বলে নির্ভর যোগ্য সূত্রে জানা গেছে। তাদেরকে ব্যাপক জিজ্ঞসাবাদ করা হচ্ছে বলে তায়েব শহর থেকে সৌদি প্রবাসী ছৈয়দ আলী এ প্রতিবেদক জানিয়েছে।

আরসার অস্ত্রদারীদের হাতে নিরহ রোহিঙ্গারা তাদের হাতে জিম্মি অবস্থায় রয়েছে বলে অভিযোগ উঠে এসেছে। উখিয়ার –টেকনাফে ৩৪টি ক্যাম্পে ১২ লাথের অধীক রোহিঙ্গা বসবাস করছে। কুতুপালং, লম্বাশিয়া,মধুরছড়া, বালুখালী, ময়নারঘোনা, জামতলী, তাজনিমারখোলা ক্যাম্প সাধারণ রোহিঙ্গাদের সাথে কথা বলে জানাযায়, দিনের বেলায় যেমন-তেমন রাতের বেলায় ক্যাম্প এলাকায় এক ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। রাত গভীর হলে সশস্ত্র রোহিঙ্গা বিদ্রোহী সংগঠন আরসার সদস্যরা ক্যাম্পে মহড়া এবং আধিপত্য বিস্তার করে থাকেন। তারা উখিয়ার প্রতিটি ক্যাম্পে আরসার গ্রুপের সদস্যরা অগ্রিম টাকা দিয়ে এনজিও কর্তৃক সরবরাহকৃত যেকোন ধরনের ত্রাণ সামগ্রী অল্প দামে ক্রয় করে গুদামজাত করে। ২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পরে মিয়ানমার থেকে এক কাপড়ে পালিয়ে এসে আশ্রয় নিয়েছিল ক্যাম্পে। এখন বিদেশী এনজিও’র টাকা নিয়ে তারা কোটিপতি। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বালুখালী ২ নাম্বার ক্যাম্পের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মোঃ জাগির জানান, আরসার তৎপরতা এবং আরসার নেতা শফিক, করিম উল্লাহ ও রফিকের ব্যাপারে আমি অবগত নয়। সুতারাং এনিয়ে কিছু বলতে পারবনা। তবে খোঁজ খবর নিয়ে পরে বিস্তারিত জানানো হবে বলে তিনি বলেন। সৌদি আরবে রোহিঙ্গাদের সরকার জামাই আদরে রাখলেও এখন আরসার ৩০ ক্যাডার গ্রেফতার হওয়ায় তারা এখন ভাবিয়ে উঠেছে। কারণ রোহিঙ্গাদেরকে কম খরচে সৌদি আরবে থাকার ব্যবস্থা করেছে। এর মাঝেও যদি তারা এমন জায়গায় অস্ত্র প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে তাহলে কি হবে এ চিন্তায় রয়েছে সৌদি সরকার।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর