Logo
শিরোনাম :
ঈদগাঁও নদীর উপর গজালিয়া হয়ে ঈদগড় সংযোগ সেতু নির্মানের কাজ শুরু মহেশখালীর হোয়ানকে অত্যাধুনিক কসমেটিক দোকান শুভ উদ্বোধন চকরিয়ায় বাস-মাইক্রো সংঘর্ষে প্রাণ গেল ২ জনের, আহত ৯ ঈদগাঁওতে সড়ক দূর্ঘটনায় অল্পের জন্য রক্ষা পেল ২৫ জন যুবলীগ কর্মী টেকনাফের চাকমারকূল ক্যাম্প হতে ৫জন রোহিঙ্গা মাঝি অপহরণ মামলার প্রধান মামুন আটক কক্সবাজারের কাউন্সিলর বাবুর মৃত্যু :ঈদগাঁওর বিভিন্ন মহলের শোক  মহেশখালীর হোয়ানক বউ বাজারে বাণিজ্যিক ভাবে গাঁজাসহ বিভিন্ন মাদক বিক্রির অভিযোগ ইব্রার চোখে ব্রাজিলের রোনালদো সর্বকালের সেরা ক্রিকেটার নাসিরের স্ত্রী তামিমার পাসপোর্টে দেওয়া ঠিকানা ভুল! জালালাবাদে গোল্ডকাপ ফুটবল টুনার্মেন্টের ফাইনাল সোমবার

হচ্ছে না প্রাথমিকের সমাপনী

অনলাইন ডেস্ক / ১৩৭ বার
আপডেট সময় : সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

করোনা পরিস্থিতির কারণে এ বছর পঞ্চম শ্রেণির সমাপনী পরীক্ষা না নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

চলমান পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে ডিসেম্বরে গ্রেড বা জিপিএ নম্বর ছাড়া সব পরীক্ষার্থীর জন্য পাসের সার্টিফিকেট বিতরণের চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে বলে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই) থেকে জানা গেছে।

ডিপিই থেকে জানা গেছে, বৈশ্বিক মহামারির জন্য গত ১৮ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। এ পরিস্থিতির কারণে চলতি বছর পঞ্চম শ্রেণির সমাপনী পরীক্ষা আয়োজন করা হচ্ছে না।

জানা গেছে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলেও স্কুল খোলা হবে বলে সরকারিভাবে ঘোষণা দেয়া হয়েছে। আগামী নভেম্বরের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব না হলে পঞ্চম শ্রেণির অপেক্ষমাণ রেজিস্ট্রেশন করা পরীক্ষার্থীদের পাসের সার্টিফিকেট দেয়া হবে। তবে সেসব সার্টিফিকেটে কোনো জিপিএ বা গ্রেড পয়েন্ট উল্লেখ থাকবে না। সার্টিফিকেটে শুধু উত্তীর্ণ লেখা থাকবে। সেটি নিয়ে শিক্ষার্থীরা ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হতে পারবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহ বলেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে নিবন্ধন করা পঞ্চম শ্রেণির সব শিক্ষার্থীকে পাসের সার্টিফিকেট দেয়া হবে। পরীক্ষা নেয়া সম্ভব না হলে গ্রেড বা জিপিএ দেয়া হবে। ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে শিক্ষার্থীদের সার্টিফিকেট স্ব স্ব বিদ্যালয়ে পাঠানো হবে। সেখান থেকে বিতরণ করা হবে।

এদিকে করোনা পরিস্থিতির কারণে সমাপনী-ইবতেদায়ি পরীক্ষা বাতিলে গত ১৯ আগস্ট প্রধানমন্ত্রীর কাছে একটি সারসংক্ষেপ পাঠানো হয়। এ নিয়ে সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউসের উপস্থিতিতে শিক্ষা এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিবের একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

সেখানে পরীক্ষা না নেয়ার প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়। এর ভিত্তিতে একটি সারসংক্ষেপ তৈরি করে প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হলে তাতে সম্মতি দেয়া হয়। পরে পরীক্ষা না নেয়ার ঘোষণা দেয়া হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর