Logo
শিরোনাম :
ইসলামপুরে ফুটবল টূর্নামেন্টের ফাইনালে……. জালালাবাদ ও খুটাখালীকে যৌথ চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা ফ্রান্সে বিশ্বনবীর ব্যঙ্গ চিত্র প্রকাশ, বিক্ষোভ ঈদগাঁওতে গোদাগাড়ীতে উপজেলার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ও ছাত্র/ছাত্রীদের বাইসাইকেল শিক্ষাবৃত্তি ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রী প্রদান গোদাগাড়ীতে পৌরসভা নির্বাচনে প্রথমবার মতো মহিলা প্রার্থী শাহনাজ আখতার ঈদগাঁওতে ডা: মোস্তাফা সরওয়ার সাদেকের পিতার মৃত্যু : বিভিন্ন মহলের শোক পেকুয়ায় চাঁদা না দেয়ায় প্রবাসীকে পিটিয়ে জখম, স্থাপনা নির্মানে বাধা অনলাইন গণমাধ্যমগুলোকে শিল্পে পরিণত করা উচিত বান্দরবানে ৬ কোটি টাকার ১১ টি প্রকল্প উদ্বোধন করলেন পার্বত্য মন্ত্রী গোদাগাড়ীর পিরিজপুরে জাগ্রত কালি মন্দির প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যে দিয়ে শেষ হলো গর্জনিয়ায় এক দিন মজুরের মৃত্যু !!

উখিয়ায় কৃষকের জমি ৫ বছর ধরে অবৈধভাবে দখল করে রেখেছে মাদক কারবারী মিজান

বার্তা পরিবেশক। / ৫৯ বার
আপডেট সময় : বুধবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০

উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম ডিগলিয়াপালং এলাকার,মৃত লাল মোহাম্মদ এর পুত্র ফরিদুল আলম এর নিজস্ব জায়গা ও পুরাতন বসতভিটা,৫ বছর ধরে অবৈধ ভাবে দখল করে রেখেছেন মাদকসেবী ও চোরাকারবারি মিজান(৩৪)।

কৃষক ফরিদুল আলম সাংবাদিকদের অভিযোগ করে বলেন,এলাকার মাদকসেবী ও চোরাকারবারি মিজান (৩৪)।রাজাপালং ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের মৃত ফকির আহম্মদের পুত্র। তার বিরুদ্ধে মাদক, চোরাচালান, ঋণ খেলাপি, মারধরের মামলা রয়েছে। যার মামলা নং- জি আর -১২৫।

মিজানের নামে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও বিচারকগণের কাছে সুপারি চুরি, অবৈধ জমি দখল, অবৈধ লেনদেন, গাছ কর্তনসহ নানান অপরাধের অভিযোগ রয়েছে।
কয়েকবার পুলিশ হাজতে থাকলেও সেসবের তোয়াক্কা না করে দেশের আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করে তার অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে।

ফরিদুল আলম জানিয়েছেন তার পুরাতন ভিটার মধ্যে রয়েছে সুপারি বাগান খেজুর গাছ গামড়ি গাছ জাম্বুরা গাছ কাটাল গাছ বাঁশ বাগানসহ আরো নানান ধরনের ফুল ও ফল গাছ।আমার রোপন করা গাছগুলো থেকে মিজান কিছু গাছ কর্তন করে বিক্রি করে দিচ্ছে,রাতের আধারে সুপারি গুলো চুরি করে বিক্রি করে দিচ্ছে বহু অপকর্মের নায়ক মিজান ও তার ছেলে সাকিব।

তাদের হুমকিতে ফরিদুল আলম তার পুরাতন বসত ভিটাতে যেতে পারে না,মাদক সেবনকারী ও চোরাকারবারি মিজান ফরিদুল আলমের পুরাতন ভিটা দখল করে গড়ে তোলেছে মাদক ও ইয়াবা সেবনের আস্তানা।

ফরিদুল আলম তার পুরাতন বসতভিটাতে
যেতে চাইলে, মিজান ধারালো অস্ত্র নিয়ে ধাওয়া করে এবং তার স্বপরিবারকে হত্যার হুমকি ও প্রতিদিন অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে বলে স্থানীয়রা জানায়।

ফরিদুল আলমের ২ একর জমিতে ৫ বছর ধরে চাষাবাদ করতে দিচ্ছে না মাদক সেবনকারী ও চোরাকারবারি মিজান। ফরিদুল আলম ও তার স্বপরিবারকে প্রতিদিন সকাল ও বিকালে রাতে, মাদক কারবারী, মিজান এর থেকে গুনতে হয় হত্যার হুমকি ও অকথ্য গালাগালি।

৪ নং রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নং ওয়ার্ডে বর্তমান ইউপি সদস্য এর কাছে মাদক কারবারী মিজানের সুপারি চুরি ও গাছ কর্তন, গালিগালাজের বিষয়ে অভিযোগ করলে তার বিচার করতে অস্বীকৃতি জানায় এবং অপরাধীর ব্যাপারে আইনী পদক্ষেপ নিতে পরামর্শ দেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর