Logo
শিরোনাম :
কক্সবাজারের কলাতলী টিএন্ডটি পাহাড়ে বসতবাড়ী উচ্ছেদে গুলিবর্ষণ, ৩ সাংবাদিক আহত কক্সবাজার সদর যুবলীগের বর্ধিত সভায়…. জালালাবাদ-পোকখালী-ইসলামাবাদ-পিএমখালী যুবলীগের সম্মেলনের তারিখ ঘোষনা বান্দরবানে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান সাংবাদিকতার যোগ‍্যতা সংক্রান্ত আইনের খসড়া সরকারের কাছে পাঠানো হয়েছে টেকনাফে হোয়াইক্যং হাইওয়ে থানায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২০ পালিত ধর্ষণের শিকার এক নারীর গল্প! টেলরের শতক, শাহীনের ৫ উইকেটের দিনে পাকিস্তানের জয় ছক্কার রেকর্ডের ম্যাচে গেইলের ৯৯ শক্তিশালী ভূমিকম্পে কাঁপলো তুরস্ক, নিহত ৪ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী’ গ্রুপের প্রধান সালমান শাহ আটক ফ্রান্সে নবীর অবমাননা’ নিয়ে টেকনাফ হোয়াইক্যংয়ের ইসলামপন্থীদের ব্যাপক বিক্ষোভ মিছিল

ভারত থেকে পঁচা পেঁয়াজ আমদানি!

মোঃ মেশবাহুল হক,চাঁপাই নবাবগঞ্জ প্রতিনিধিঃ / ৮১ বার
আপডেট সময় : রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

শিবগঞ্জের সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে আমদানি করা বেশিরভাগই পঁচা বলে অভিযোগ করেছেন ব্যবসায়ীরা। এতে আর্থিকভাবে মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন তারা। টানা পাঁচদিন বন্ধ থাকার পর শনিবার এলসির টেন্ডার করা আটটি পেঁয়াজভর্তি ট্রাক সোনামসজিদ স্থলবন্দরে প্রবেশ করে। এতে প্রায় ২৪০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ ছিল।
রোববার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, শিবগঞ্জের আড়তগুলোতে ফ্যান দিয়ে পেঁয়াজে বাতাস দেয়া হচ্ছে। ব্যবসায়ীরা বলছেন, আমদানি করা পেঁয়াজের অধিকাংশই পঁচে নষ্ট হয়ে গেছে। এতে তারা আর্থিকভাবে ক্ষতির সম্মুখীন। শিবগঞ্জের পেঁয়াজ আড়তদার আজিজুল হক ও তাজিমুল হক বলেন, ভারত থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের মধ্যে প্রায় ৩০ ভাগই নষ্ট।
সোনামসজিদ স্থলবন্দরে সঙ্গনিরোধ কীটতত্ত্ববিদ অফিসের কর্মকর্তা তারেক ও পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেডের ডেপুটি ম্যানেজার মাইনুল ইসলাম জানান, আমদানি করা পেঁয়াজের অধিকাংশই পঁচে নষ্ট হয়েছে। এতে ব্যবসায়ীরা বড় ধরনের আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হবেন। তারা জানান, ভারতের ওপারে মহদিপুর স্থলবন্দরে আটকেপড়া পেঁয়াজের গাড়িগুলো পরবর্তী এলসিতে আসার অপেক্ষায় আছে। কিন্তু ভারতীয় কর্তৃপক্ষের অনুমতি না পাওয়া ও পেঁয়াজ পঁচে যাওয়ার কারণে গাড়িগুলো ফিরে যাচ্ছে।
এদিকে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হলেও বাজারে কোনো প্রভাব পড়েনি। এখনও বাজারে দেশি পেঁয়াজ ৭০ থেকে ৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।
সোনামসজিদ স্থলবন্দর আমদানি-রফতানিকারক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক তৌফিকুর রহমান বাবু জানান, গত ১৪ সেপ্টেম্বরের আগে খোলা এলসির বিপরীতে আটকেপড়া মহদীপুর স্থলবন্দরে পেঁয়াজ রফতানির অনুমতি দিয়েছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে প্রায় ২৪০ টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে।
মহদিপুর স্থলবন্দর সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক শ্রী ভূপতি মণ্ডল জানান, অনুমতি না পাওয়ায় ও পেঁয়াজ নষ্ট হওয়ার কারণে প্রায় ৩শ’ ট্রাক এরই মধ্যে ফেরত গেছে।
তিনি জানান, এখনও প্রায় শতাধিক পেঁয়াজভর্তি ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় রয়েছে। তবে ট্রাকগুলো কবে নাগাদ সোনামসজিদ স্থলবন্দরে প্রবেশ করবে তা তিনি বলতে পারেননি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর