Logo
শিরোনাম :
কুতুবদিয়ার সন্তান কেন্দ্রীয় মৎস্যজীবী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত চাঁপাইনবাবগঞ্জে ‘কমিউনিটি পুলিশিং ডে’ উদযাপন শিবগঞ্জে প্রশাসনের অভিযান: ১৬ লাখ টাকার অবৈধ মোবাইল জব্দ মহানবী (সা.) এর অবমাননা, প্রতিবাদে চাঁপাইনবাবগঞ্জে মানববন্ধন ঈদগাঁওতে সেচ্ছাসেবী সংগঠক রানার উপর হামলা : সুষ্ট বিচার দাবী কক্সবাজারের কলাতলী টিএন্ডটি পাহাড়ে বসতবাড়ী উচ্ছেদে গুলিবর্ষণ, ৩ সাংবাদিক আহত কক্সবাজার সদর যুবলীগের বর্ধিত সভায়…. জালালাবাদ-পোকখালী-ইসলামাবাদ-পিএমখালী যুবলীগের সম্মেলনের তারিখ ঘোষনা বান্দরবানে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান সাংবাদিকতার যোগ‍্যতা সংক্রান্ত আইনের খসড়া সরকারের কাছে পাঠানো হয়েছে টেকনাফে হোয়াইক্যং হাইওয়ে থানায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে-২০২০ পালিত ধর্ষণের শিকার এক নারীর গল্প!

চাঁপাইনবাবগঞ্জে কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অমান্য করে এমপি হারুনের মনোনয়ন বানিজ্য

মোঃ মেশবাহুল হক চাঁপাই নবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি / ৭৫ বার
আপডেট সময় : সোমবার, ৫ অক্টোবর, ২০২০

আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল- বিএনপি’র দলীয় মনোনয়ন নিয়ে বানিজ্য ও নিজের ইচ্ছেমতো প্রার্থীকে চূড়ান্ত দলীয় মনোনয়ন দেয়ার অভিযোগ উঠেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ও বিএনপির যুগ্ন মহাসচিব হারুনুর রশীদের বিরুদ্ধে।
অভিযোগ রয়েছে, জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে না জানিয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার করে আসন্ন চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সিলর পদে চূড়ান্ত দলীয় মনোনয়ন দিচ্ছেন সাংসদ হারুনুর রশীদ। বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশনা অমান্য করে নিজেই ফরম দিয়ে বিপুল পরিমান অর্থ আদায়ের অভিযোগ করছেন জেলা বিএনপির একাংশ।
এই প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে পৌরসভার ১৫ জন ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও ৪ জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছেন এমপি হারুন।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাড. রফিকুল ইসলাম টিপু জানান, পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন চূড়ান্ত করার এখতিয়ার এমপি হারুনের নেই। এই দায়িত্ব সম্পূর্ণভাবে জেলা বিএনপির। তিনি যা করছেন, তা সম্পূর্ণ দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে ও অবৈধ।
জেলা বিএনপির সভাপতি আরো বলেন, শুনেছি চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী মেয়র প্রার্থী ৩ জনের কাছে ২৫ হাজার করে এবং কাউন্সিলর পদে প্রায় ৩০ প্রার্থীর কাছে ৫ হাজার করে টাকা নিয়ে ফরম দিয়েছেন এমপি হারুন। এমনকি কাউন্সিলর হিসেবে দলীয় মনোনয়নও দেয়া হয়েছে গত শনিবার। তফসিল ঘোষণার পূর্বে জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে না জানিয়ে এবং কোন আলোচনা ছাড়াই দলীয় মনোনয়ন চূড়ান্ত করা সম্পূর্ণ একক সিদ্ধান্ত।
বিষয়টি বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে জানানো হয়েছে বলে জানিয়ে তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় কমিটি এবিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন। জেলা বিএনপির পক্ষ হতে পুনরায় দলীয় প্রার্থী মনোনয়ন দেয়া হবে বলে জানান তিনি।
জেলা বিএনপির অপর এক নেতা বলেন, পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করতে ফরম দিচ্ছেন ও দলীয় মনোনয়ন দিচ্ছেন এমপি হারুন। এক্ষেত্রে এমপি তার পছন্দের প্রার্থীকেই চ‚ড়ান্ত করছেন। তিনি কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা, তাই এসব কার্যক্রমে জেলা কমিটির কোন মতামত বা পরামর্শ নেয়ারও প্রয়োজন মনে করছেন না।
এমপি হারুনের থেকে দলীয় মনোনয়ন নিতে মেয়র পদে ২৫ হাজার টাকা ও কাউন্সিলর পদে ৫ হাজার করে ফরমের অফেরতযোগ্য মূল্য নেয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন আসন্ন পৌর নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী পৌর বিএনপির সহ-সভাপতি শাহনেওয়াজ খান সিনা।
তিনি জানান, পৌর বিএনপি নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে ফরমের অফেরতযোগ্য মূল্য নির্ধারন করা হয়। গত মঙ্গলবার কাউন্সিলর পদে দলীয় মনোনয়ন নেয়ার আবেদনের শেষ সময় ছিলো এবং শনিবার সবগুলো ওয়ার্ডে দলীয় মনোনয়ন পাওয়া কাউন্সিলর প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছেন বিএনপির যুগ্ন মহাসচিব হারুনুর রশীদ।
তিনি আরো বলেন, এ পর্যন্ত মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন নিতে ৩ প্রার্থী ফরম সংগ্রহ করেছেন। অন্য দুইজন হলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. ময়েজ উদ্দীন ও সাবেক ছাত্রনেতা মো. আনোয়ার হোসেন। মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন চূড়ান্তের সিদ্ধান্ত আরো সপ্তাহ দুয়েক পরে আসতে পারে বলে জানান তিনি।
রবিবার দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সাংসদ ও বিএনপির যুগ্ন মহাসচিব হারুনুর রশীদের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তার ব্যক্তিগত সহকারী বলেন, এমপি ব্যস্ত আছেন, পরে ফোন করবেন। সোমবার কয়েকবার ফোন দিলেও কেউ রিসিভ করেননি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর