Logo
শিরোনাম :
শান্তিপূর্ণ ভাবে রাজাপালং ৯নং ওয়ার্ডের নির্বাচন সম্পন্ন পিতার আসনে ছেলে হেলাল উদ্দিন বিজয়ী  চকরিয়ায় কীটনাশক পানে পলিটেকনিক ছাত্রের আত্মহত্যা ব্যবসায়ীদের ক্ষোভ….. ঈদগাঁও বাজারে মলকান্ড : জনদূূর্ভোগ চরমে কক্সবাজারে নৌকা ভ্রমণে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন দুই বন্ধু রামুতে ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রী ও বাঁক প্রতিবন্ধী নারী ধর্ষণের শিকার টেকনাফে অস্ত্র ও ইয়াবাসহ আটক ১ টেকনাফে ১০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল ধ্বংস দুর্নীতির মামলায় অধ্যক্ষ আব্দুর রহমানকে জেল হাজতে পাঠিয়েছে আদালত ঢাকা- নওগাঁ উপ-নির্বাচনের ফলাফল প্রত‌্যাখান করে বান্দরবান জেলা বিএনপির প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ পেকুয়ায় বড় ভাই ছোট ভাইকে কামড়িয়ে আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন

সিনহা হত্যা: রিমান্ড শেষে কনস্টেবল রুবেল শর্মাকে আদালতে হস্তান্তর

কক্সবাজার প্রতিনিধি।  / ৪১ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২০

মেজর (অব:) সিনহা মো. রাশেদ হত্যা মামলায় সন্দেহজনকভাবে গ্রেপ্তারকৃত আসামী টেকনাফ মডেল থানার সাবেক কনস্টেবল রুবেল শর্মা’র ৭দিনের রিমান্ড শেষ হয়েছে। রিমান্ড শেষে বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় তাকে আদালতের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
সিনহা হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা র‌্যাব ১৫ এর সহকারী পুলিশ খায়রুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানিয়েছেন, ১৬৪ ধারা জবানবন্দি নয়; রিমান্ড শেষ হওয়ায় রুবেল শর্মাকে আদালতে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে সাত দিনের রিমান্ডে তার কাছ থেকে সিনহা হত্যা মামলা সম্পর্কে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে।
তথ্য মতে, সিনহা হত্যা মামলার ১৪ আসামীর মধ্যে সর্বশেষ আসামী হিসেবে সংযুক্ত হয় রুবেল শর্মা। গত ১৪ সেপ্টেম্বর গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। কথিত আছে-সাবেক কনস্টেবল রুবেল শর্মা কারাগারে থাকা টেকনাফ মডেল থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশ এর বিভিন্ন অপকর্মের অন্যতম সহযোগী ছিলেন।
গত ৩০ সেপ্টেম্বর মামলার আইও র‌্যাব-১৫ এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. খায়রুল ইসলামের ১০দিনের রিমান্ড আবেদন এর প্রেক্ষিতে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত নম্বর-৩ (টেকনাফ) এর বিচারক তামান্না ফারাহ্ আবেদনের শুনানী শেষে রুবেল শর্মা’র ৭দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। ২ অক্টোবর তাকে রিমান্ড হেফাজতে নেয়া হয়। উল্লেখ্য, গত ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর এলাকায় এপিবিএন’র চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) সিনহা মোঃ রাশেদ খান। এ ঘটনায় ৫ আগস্ট নিহত মেজর (অবঃ) সিনহার বড় বোন শারমিন শাহরিয়ার ফেরদৌস বাদী হয়ে ৯জনের বিরুদ্ধে একই আদালতে মামলাটি করেন। পরে আরো ৫জনকে আসামী হিসেবে সংযুক্ত করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর