Logo
শিরোনাম :
চাঁপাইনবাগঞ্জের শিবগন্জে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ইসলামপুরে ফুটবল টূর্নামেন্টের ফাইনালে……. জালালাবাদ ও খুটাখালীকে যৌথ চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা ফ্রান্সে বিশ্বনবীর ব্যঙ্গ চিত্র প্রকাশ, বিক্ষোভ ঈদগাঁওতে গোদাগাড়ীতে উপজেলার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ও ছাত্র/ছাত্রীদের বাইসাইকেল শিক্ষাবৃত্তি ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সামগ্রী প্রদান গোদাগাড়ীতে পৌরসভা নির্বাচনে প্রথমবার মতো মহিলা প্রার্থী শাহনাজ আখতার ঈদগাঁওতে ডা: মোস্তাফা সরওয়ার সাদেকের পিতার মৃত্যু : বিভিন্ন মহলের শোক পেকুয়ায় চাঁদা না দেয়ায় প্রবাসীকে পিটিয়ে জখম, স্থাপনা নির্মানে বাধা অনলাইন গণমাধ্যমগুলোকে শিল্পে পরিণত করা উচিত বান্দরবানে ৬ কোটি টাকার ১১ টি প্রকল্প উদ্বোধন করলেন পার্বত্য মন্ত্রী গোদাগাড়ীর পিরিজপুরে জাগ্রত কালি মন্দির প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যে দিয়ে শেষ হলো

প্রেমিকাকে প্রমাণ দিতে গিয়ে ভুয়া এএসপি গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ / ৫৮ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০২০

গাজীপুরে ভুয়া সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পরিচয় দেওয়া কাউছার (২৮) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে মাওনা হাইওয়ে থানা পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে গণভবনের একটি পরিচয়পত্র জব্দ করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মাওনা চৌরাস্তা হাইওয়ে পুলিশ বক্স থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। কাউছার ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার মজিদপুর গ্রামের বাদশা মিয়ার ছেলে।

মাওনা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ আর এম আল মামুন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘কাউছার দুপুর সোয়া ১২টার সময় মাওনা উড়াল সেতুর নিচে কর্তব্যরত কনস্টেবলদের কাছে নিজেকে সিনিয়র এএসপি পরিচয় দেয়। এ সময় তার সাথে এক যুবতী মেয়ে ছিল। পরে তারা আমাকে ফোনে জানালে আমি ওই ভুয়া এএসপিকে উড়াল সেতুর নিচে পুলিশ বক্সে নিয়ে বসানোর নির্দেশ দেই এবং আপ্যায়ন করার কথা বলি। পরে পুলিশ বক্সে এসে দেখি সে আমার চেয়ারে বসে আছে। তার কথাবার্তা ও আচরণে সন্দেহ হলে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে প্রকৃত পরিচয় স্বীকার করে। এ সময় তার সাথে থাকা ওই মেয়ে কৌশলে সটকে পড়ে। তার বিরুদ্ধে ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া সদর থানায় সরকারি কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণার অভিযোগে মামলা রয়েছে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার কাউছার আরও জানায়, সে ওই মেয়ের সাথে সিনিয়র এএসপি পরিচয়ে মুঠোফোনে দুই দিনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। পরে মেয়ের কাছে নিজেকে এএসপি প্রমাণ দেওয়ার জন্য মাওনা এলাকায় পুলিশ বক্সে নিয়ে আসে।

সরকারি কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণার অভিযোগে কাউসারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে শ্রীপুর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান ওসি আল মামুন।

সূত্র,আমাদের সময়


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর