Logo
শিরোনাম :
মহেশখালীর কালারমারছড়া’য় সড়ক সংস্কারে ব্যবহৃত স্কেভেটারের চাপায় এক পথচারী আহত কক্সবাজারে ৭২০ ক্যান বিয়ারসহ দুই কারবারী আটক টেকনাফে ধরা পড়ল ভয়ঙ্কর মাদক আইসের বড় চালান মহেশখালীর কালারমার ছড়ায় ঘর দেয়ার নামে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে একটি প্রতারক চক্র রামুতে RAB এর সাথে বন্দুকযুদ্ধে এক ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত চকরিয়ায় অবৈধ বালু উত্তোলনকালে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান: ড্রেজারসহ ৮টি মেশিন ধ্বংস,২৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় মহেশখালী থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে অপহৃত কিশোর’কে ৫ মাস পর উদ্ধার। ইসলামপুরে মালবাহী ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত ৬  কক্সবাজারে সেই তিন পুলিশ সদস্য সাময়িক বরখাস্তঃ ২ দিনের রিমান্ডে রামুর গর্জনিয়া মাছ বাজার রাস্তার ওপর পঁচা পানির দুর্গন্ধ

উখিয়ায় যানবাহনের চাপঃ বাস টার্মিনালের দাবিঃ জনদুর্ভোগের শেষ নেই

হুমায়ুন কবির জুশান / ৮৩ বার
আপডেট সময় : রবিবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২০

রোহিঙ্গা অধ্যুষিত ব্যয় বহুল গ্রামীণ শহরের নাম উখিয়া। উখিয়া ইতিমধ্যে মানবতার শহরে পরিচিতি পেয়েছে বিশ্বব্যাপী। এই শহরের মানুষগুলো যানজট ও জনজটে পৃষ্ট হয়ে চরম জনদুর্ভোগে পড়েছে। প্রতিদিন ভোর হলেই মানবতার সেবাই নিয়োজিত এনজিও গাড়ির বহরে বাড়তি চাপ পড়ে। হাজার হাজার যানবাহন কক্সবাজার-টেকনাফ সড়ক দিয়ে চলাচল করছে। ঘন্টার পর ঘন্টা আটকে থাকা যানবাহনে যাত্রীদের অপেক্ষায় থাকতে হয়। শীতের সমাগমে আসতে শুরু করেছে দেশি-বিদেশি পর্যটক। অপরুপ সৌন্দর্য উপভোগ করতে আসা পর্যটকরা বিরক্তবোধ করছে। সরকার যোগাযোগ ব্যবস্থার অভূতপূর্ব উন্নয়ন করলেও সিস্টেম লসের কারণে ও অব্যবস্থাপনায় কাজে আসছে না।
কক্সবাজার-টেকনাফ সড়ক প্রসস্থকরণ করে দৃষ্টিনন্দন করা হলেও রাস্তার দু-পাশ অবৈধ দখলে রাখায় যানজট নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রতিদিন ৭ টা হতে ১১ টা আবার দুপুর ২ টা হতে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত কক্সবাজার থেকে আসা যাওয়া করছে শত শত এনজিওর প্রাইভেট গাড়ির বহর। পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের জন্যে আনা-নেয়া করছে পণ্যবাহি ট্রাক। যাত্রীবাহী পরিবহন। এখানে ট্রাফিক পুলিশ অসহায়। হাতে গোনা কয়েকজন পুলিশ উত্তপ্ত গরমে রাস্তায় দাঁড়িয়ে থেকে দায়িত্ব পালন করতে দেখা যায়।উখিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী বলেন, সব কিছু অপরিকল্পিতভাবে চলছে। একটি সুন্দর নীতিমালা দরকার। কেউ এগিয়ে আসে না। যে যার যার মত করে চলছে। এভাবে চলতে পারে না। আমরা যেখানে আগে ১০ মিনিটের মধ্যে উখিয়া থেকে কোটবাজার যেতে পারতাম আজ সেখানে ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করতে হচ্ছে। সময়ের অপচয় হচ্ছে। দায়িত্বশীল রাজনীতিবিদদের সমন্বয়ে উখিয়ার সার্বিক উন্নয়নে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি সংলিষ্ট সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানান। পরিবহন ও শ্রমিক নেতা সাকিল বলেন, শুক্রবার ছাড়া যানবাহনের বাড়তি চাপ পড়ে উখিয়া এলাকায়। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যাত্রীবাহী পরিবহনের চাপ বাড়ছে। উখিয়ায় কোন বাস টার্মিনাল না থাকায় রাস্তার উপর যত্রতত্র সী লাইন ও কক্স লাইন সার্ভিস যাত্রী ওঠানামা করছে। সচেতন মহল মনে করেন, উখিয়ায় একটি বাস টার্মিনাল তৈরি করে যানজটের কবল থেকে রক্ষা করা দরকার। পণ্যবাহী ট্রাক ঘন্টার পর ঘন্টা রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকে। আবার অধিকাংশ স্থানে গাড়ি মেরামতের জন্যে রাখা হয়। অন্যদিকে রাস্তার কাজও এখন পুরোদমে শুরু হয়েছে তাই দীর্ঘ যানজট লেগেই থাকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর