Logo
শিরোনাম :
মহেশখালীর বসতবাড়ীতে আগুন,প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র পুড়ে ছাই,ক্ষয় ক্ষতির পরিমাণ-৮ লক্ষ টাকা চকরিয়ার জনসভায় আ.লীগের যুগ্ন-সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ লবণের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিতে উদ্যোগ নেওয়া হবে মহেশখালীতে পরকিয়া প্রেমের টানে গৃহবধূ উধাও  ভাসানচর ঘুরে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যা বললেন ইউসেফ আল দোবেয়ার কক্সবাজারে বঙ্গবন্ধু-বাংলাদেশ কর্ণার’ ও ‘স্বাধীনতা মঞ্চ’ উদ্বোধন বান্দরবানে ২৭ কোটি ৬৩ লাখ ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন কক্সবাজারে ২ পিকআপ সংঘর্ষে পথচারী নিহত ঈদগাঁওতে অক্ষরের উদ্যোগে রচনা প্রতিযোগিতার পুরুস্কার বিতরন সম্পন্ন রামু থানা পুলিশের মাদক ও সন্ত্রাস বিরোধি সাড়াশি অভিযান শুরু মহেশখালীতে আলোচিত গফুর হত্যা মামলার আসামি গ্রেফতার

চকরিয়ায় অবৈধ বসতি গুঁড়িয়ে দিয়ে এক একর সংরক্ষিত বনভূমি উদ্ধার

চকরিয়া প্রতিনিধি। / ৮৩ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০

কক্সবাজারের চকরিয়ায় অবৈধ জবরদখলকারীর কবল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে এক একর সংরক্ষিত বনভূমি। এ সময় গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় সংরক্ষিত বনভূমি দখলে নিয়ে নির্মিত দুটি অবৈধ বসতি।

বৃহস্পতিবার বিকেল চারটার দিকে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়ার খুটখালী মেধাকচ্ছপিয়া জাতীয় উদ্যানের কচ্ছপিয়া এলাকায় এই অভিযান চালায় বনবিভাগ।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. তহিদুল ইসলাম। সাথে ছিলেন বনবিভাগের ফাঁসিয়াখালী ও ফুলছড়ি রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. মাজহারুল ইসলাম, মেহেরঘোনা রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. মামুন মিয়া, সিএস রেঞ্জ কর্মকর্তা, ডুলাহাজারা বনবিট কর্মকর্তাসহ ফরেষ্টার, সিপিজি ও ভিলেজারগণ।

ফাঁসিয়াখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. মাজহারুল ইসলাম জানান, ফুলছড়ি রেঞ্জের নিয়ন্ত্রণাধীন মেধাকচ্ছপিয়া জাতীয় উদ্যানের (ন্যাশনাল পার্ক) প্রায় এক একর বনভূমি জবরদখলে নিয়ে সেখানে নির্মাণ করা হয় অবৈধ বসতি। সেই বসতি গুঁড়িয়ে দিয়ে দখলমুক্ত করা হয়েছে সংরক্ষিত বনভূমি। অভিযানে সরাসরি নেতৃত্ব দেন বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. তহিদুল ইসলাম। রেঞ্জ কর্মকর্তা আরো জানান, যেখানেই সংরক্ষিত বনভূমি জবরদখল করা হবে, সেখানেই সাঁড়াশি অভিযান চালিয়ে দখলে নেওয়া বনভূমি জবরদখলমুক্ত করা হবে।

এতেও কাজ না হলে প্রয়োজনে বন আইনে মামলা রুজু করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর