Logo
শিরোনাম :
ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালন ও আনন্দ উদযাপন করেছে রামু থানা পুলিশ চাঁপাইনবাবগঞ্জে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের আলোচনা সভা ও পুরুষ্কার বিতরণ ঈদগাঁও থানার উদ্যোগে ৭ মার্চ উপলক্ষে আনন্দ উদযাপন অনুষ্টান সম্পন্ন টেকনাফে ৩৫ হাজার ইয়াবা ফেলে পালিয়েছে পাচারকারী! ঈদগাহ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে ৭ মার্চের আলোচনা সভা ও ভাষন সম্প্রচার রাজাপালং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি’র উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছে চকবাজার থানা ছাত্রলীগ কলাতলীতে ট্রাক চাপায় নিহত তিনজনের পরিচয় শনাক্ত, চিকিৎসাধীন ৮ কক্সবাজারে সিমেন্ট বোঝাই ট্রাকের ধাক্কায় সিএনজি অটোরিক্সার যাত্রীসহ দুইজন নিহত, আহত-৮ ঈদগাঁওতে আবারো গরু চুরি 

আওয়ামীলীগে ঈদগাঁও থানা কমিটি স্বীকৃতির দাবী

এম আবু হেনা সাগর,ঈদগাঁও / ১২৮ বার
আপডেট সময় : শনিবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২১

কক্সবাজার সদরের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা হচ্ছে বৃহত্তর ঈদগাঁও। ৫টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত হল ঈদগাঁও থানা। পোকখালী, ইসলামাবাদ, ইসলামপুর,জালালাবাদ ও আলোচিত ঈদগাঁও ইউনিয়নকে নিয়ে। নানা চড়াই উৎরাই পেরিয়ে দীর্ঘকাল পর ২০শে জানুয়ারী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উপস্থিত হয়ে ঈদগাঁওকে থানা ঘোষনা করেন। রাজনৈতিক ক্ষেত্রে ঈদগাঁও এলাকাটি অতীব গুরুত্ববহন করে থাকে।
দেখা যায়, ছাত্রলীগ, শ্রমিকলীগ দীর্ঘদিন ধরে ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেলা হিসেবে কর্মসুচী পালন করে যাচ্ছেন। বর্তমানে আ,লীগে সদর থানা কমিটি রয়েছে। এতে পরীক্ষিত ও রাজপথে লড়াই করে যাওয়া নেতাকর্মীরা হতাশ হয়ে পড়েছে। কারন ১০ ইউনিয়নে অন্ত ভুক্ত সদর উপজেলা। বৃহত্তর এলাকায় রাজনৈতিক কর্মকান্ড পরি চালিত করা অনেকটা কষ্টকর হয়ে পড়ে। সে হিসেবে পাঁচ ইউনিয়ন কে যদি আলাদা করে ঈদগাঁও থানা কমিটির স্বীকৃতি প্রদান করা হয়, তাহলে রাজনৈতিক চর্চা করতে সহজতর হবে এমনি অভিমত নেতাকর্মীদের।

রাজনীতি চর্চার ক্ষেত্রে আওয়ামীলীগকে যদি ঈদগাঁও থানা কমিটি স্বীকৃতি দেয়, তাহলে যেকোন আন্দোলন সংগ্রামে নেতাকর্মীরা চাঙ্গা থাকবে আর রাজপথ শক্তিশালী হবে। সে দাবী বাস্তবায়নে কেন্দ্রসহ জেলা নেতৃবৃন্দের সুদৃষ্টি কামনা করেন ঈদগাঁওর তৃনমুল পর্যায়ের কর্মীরা।

ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি আমজাদ হোসেন ছোটন রাজা জানান, দক্ষিন এশিয়ার বৃহৎ সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগকে যদি আলাদা ঈদগাঁও থানা কমিটির স্বীকৃতি দেয়, তাহলে নেতাকর্মীদের মাঝে চাঙ্গাভাব সৃষ্টির পাশাপাশি দলে গতিশীলতা দ্বিগুন বৃদ্বি পাবে।

ঈদগাঁও ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি এনাম রনি জানান, জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে এবং নতুন নেতৃত্ব সৃষ্টির লক্ষে ঈদগাঁও থানা আ,লীগের কমিটি করা হউক। রাজনৈতিক চর্চার পাশাপাশি রাজপথ চাঙ্গা হবে।

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক উপ সাংস্কৃতিক সম্পাদক আনোয়ারুল আজম খোকন জানান, আ,লীগে যদি ঈদগাঁও থানা কমিটি দেয়, তাহলে নতুন নেতৃত্ব সৃষ্টি হবে, নেতাকর্মীদের খোজঁখবর রাখাসহ নানাক্ষেত্রে সংগঠন শক্ত অবস্থান করবে।

ঈদগাঁও ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি মাহবুবুল আলম মাবু জানান,আলাদা যদি ঈদগাঁও থানা আ,লীগের কমিটি হয়, তাহলে নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন হবে, দুরত্ব কমে যাবে। দল সু-সংগঠিত হবে।

এলাকার তৃনমূল কর্মীদের মতে, আলাদাভাবে যেহেতু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী থানা অনুমোদন দিয়েছেন, সেহেতু থানা আ,লীগ কমিটি করার প্রতি দাবী জেলা আ,লীগ নেতৃবৃন্দের নিকট। দলীয় কর্মীদের মাঝে সু-সম্পর্ক তৈরী হবে পাশাপাশি সাংগঠনিক ভাবে একধাপ এগিয়ে যাবে বৃহৎ সংগঠন আ,লীগের কর্মকান্ড ঈদগাঁওতে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর