Logo

নাইক্ষ্যংছড়িতে কলেজ ছাত্রীকে ফিল্মস্টাইলে অপহরণের চেষ্টা আটক ৪

নাইক্ষ‌্যংছড়ি প্রতিনিধি: / ১৯৮ বার
আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১

নাইক্ষ্যংছড়ি হাজি কালাম ডিগ্রি কলেজ ছাত্রীকে নির্যাতন ঘটনায় ৪ বখাটেকে আটক করেছে থানা পুলিশ। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মামলার প্রক্রিয়া চলছে জানিয়েছেন থানা পুলিশ ।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আবুল হাশেম প্রকাশ কালু জানান,দুপুর ২ টার দিকে নাইক্ষ্যংছড়ি সদরের পূর্ববিছামার নুুুরুল হাকিমের ইন্টার সেকেন্ট ইয়ারের পড়ুুয়া মেয়ে তাসনিম আক্তার (১৭) নিজ প্রতিষ্টান হাজি এম এ কালাম ডিগ্রি কলেজ থেকে ক্লাস শেষে বাড়ি ফিরছিলেন টমটম গাড়ি যোগে। এ সময় পার্শ্ববর্তী কচ্ছপিয়ার নতুন মিয়াজি পাড়ার হাজি আবদুল গফুর মিয়াজির ছেলে তামিম মিয়াজির নেতৃতে ৩/৪ জন যুবক তার পিছু নে। তারাও অপর একটি টমটমে করে তাসনিমকে তাড়াতে থাকে।
এক পর্যায়ে ছাত্রীটি তার নিজ গ্রামের কাছাকাছি পৌঁছে গিয়ে এক প্রতিবেশির বাড়িতে পৌঁছে যায়। বাড়ির দরজায় তালামারা দেখে দৌড়ে অপর বাড়িতে আশ্রয় নিতে যাওয়ায় পথে বখাটে তামিম মিয়াজি তাকে ঝাপড়ে ধরে টেনে নিয়ে আসে। শুরু হয় আর্তনাদ আর চিৎকার।কালুু মিয়া আরো জানান,চিৎকার শুনে সে নিজেও এগিয়ে আসে।
উদ্ধার করে মেয়েটিকে। তাকে ধৃত করে ফেলে সে। কিন্ত বিধি বাম। এরই মাঝে তার অপেক্ষামান বন্ধুদের ফোনের মাধ্যমে আরো ২০/২২ জন বখাটে যুবক রাম দা,বল্লম,ছুরি সহ চলে আগে গয়াল খামারের এ এলাকায়।সৃষ্টি হয় একক অরাজকতার।
পুরো গ্রামে তখন আতংক ছড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে তারা তাকে মারতে দৌড়াতে থাকে। যেন ফিল্মস্টাইল। অল্পের জন্যে সে বেঁচে যায়। গ্রামবাসী এগিয়ে আসে।মেয়েটি এব্ং কালু উদ্ধার হয়।
আর জনতার হাতে আটক হয় ৪ জন। তারা হলো:। কচ্ছপিয়ার নতুন মিয়াজি পাড়ার হাজি গফুরের ছেলে তামিম(১৯),ইসমাইলের ছেলে রিপন (১৯) খুরশেদের ছেলে নবী(২০) আলম ও মৌলভী কাটার শামূল আলম (১৮)।এ বিষয়ে, থানার অফিসার ইনচার্জ মো:আলমগীর হোসেন মঙ্গলবার রাতে জানান, থানায় আটক ৪ জন সহ ২০/২২ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। এবং বেআইনী কর্মকান্ডে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর