Logo

আমার মেয়ে বাংলাদেশের সম্পদ: সাফ অনূর্ধ্ব-১৯ টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় রিপার বাবা

নিজস্ব প্রতিবেদক। / ১৫৪ বার
আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০২১

শক্তিধর ভারতকে হারিয়ে সাফ ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী ফুটবল দল। এই টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ গোলদাতা ও সেরা খেলোয়াড় হওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন উখিয়ায় জন্ম নেওয়া শাহেদা আক্তার রিপা।
বাংলাদেশের জয়ের পেছনে মেয়ের অসামান্য অবদান থাকায় ভীষণ খুশি রিপার বাবা জালাল আহমদ।
তিনি বলেন, শাহেদা কেবল আমার মেয়ে নয়; সে বাংলাদেশের সম্পদ এবং সবার মেয়ে। টিভিতে খেলায় দেখার সময় মেয়ের নৈপুণ্য, ফুটবল শৈলী দেখে খুবই ভালো লেগেছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। আর বাংলাদেশকে জয় এনে দিতে পারায় আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জানান।
 ২১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় খেলা শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী সাফ নারী টুর্নামেন্টে সেরা গোলদাতা ও সেরা খেলোয়াড় হিসেবে দুটি ট্রফি তুলে দেন রিপার হাতে। বাংলাদেশের জয় আর রিপার এমন অর্জনে তাঁর গ্রামেও রীতিমতো উৎসবের পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, শাহেদা আক্তার রিপা উখিয়ার জালিয়াপালং ইউনিয়নের সোনাছড়ি গ্রামের জালাল আহমদ ও শামসুন্নাহারের দ্বিতীয় কন্যা। ২০১৭ সালে বিকেএসপিতে ভর্তি হয়ে ভারতে খেলার সুযোগ পায় রিপা। ওই বছর ভারতের বিরুদ্ধে ৪০ সেকেন্ডের মাথায় দ্রুততম গোল করে এবং ২০১৮ সালে অনূর্ধ্ব ১৫ ভুটানের বিরুদ্ধে ৭৩ ও ৮৩ মিনিটে ২টি গোল করে বাংলাদেশের হয়ে নারী ফুটবলে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার সুযোগ পায়। বর্তমানে রিপা বিকেএসপির দশম শ্রেণির ছাত্রী। ২০২২ সালে সে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে।
ছোটবেলায় মেয়ের ফুটবল খেলা দেখে উৎসাহ দিতেন জালাল আহমদ। তাঁর স্বপ্ন মেয়ে একদিন অনেক বড় মাপের ফুটবলার হবে; বিশ্বকাপে অংশ নেবে।
প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঢাকা কমলাপুর স্টেডিয়ামে ভারতকে ০-১ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ হয়ে অনূর্ধ্ব ১৯ নারী দলের শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিক ও ভুটানের বিরুদ্ধে দুটি গোল করে করেন রিপা। ভারতের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ জয়ের পেছনে সাহেদা আক্তার রিপার অসাধারণ নৈপুণ্য ছিল। ৮০ মিনিটের মাথায় শাহেদার পাস থেকে করা গোলেই বাংলাদেশের কাঙ্ক্ষিত জয় পায় বাংলাদেশ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর