Logo
শিরোনাম :
পেকুয়ায় গৃহবধূ হত্যা: ৩৭ জনকে আসামি করে মামলা চকরিয়ায় আটক ৬ নারী-পুরুষ জরিমানা ও মুচলেকায় মুক্ত সীতাকুণ্ডে গাড়ি চাপায় এক মহিলা নিহত আ,লীগের জরুরী সভা ইসলামপুর ইউনিয়ন আ,লীগের সাধারন সম্পাদককে বয়কটের ঘোষনা তৃনমূল নেতৃবৃন্দের বিদায় ১৪২৭, আজ চৈত্র সংক্রান্তি রোগীদের অক্সিজেন সংকট নিরসনে বান্দরবান সদর হাসপাতালে চালু করা হলো নতুন অক্সিজেন প্ল‍্যান্ট হাটহাজারীতে ইট ভাটার দেওয়াল চাপা পড়ে এক শ্রমিকের মৃত্যু বিদ্যুৎস্পৃষ্টে গুরুতর আহত হয়ে ৯দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুর কাছে হার মানলো মাদরাসা ছাত্র সন্দ্বীপে সড়ক দুর্ঘটনায় একজনের মৃত্যু কক্সবাজার বিমানবন্দর এলাকায় মিললো গুলির বস্তা

শীতে সানস্ক্রিন কতটা জরুরি?

স্বাস্থ্য ডেক্স। / ১৭২ বার
আপডেট সময় : রবিবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২০

বাতাসে হালকা ঠান্ডা জানান দিচ্ছে শীত আসি আসি করছে। শীতকালে ঠান্ডার আমাজে খানিকটা রোদ শরীরে লাগাতে দুপুরে বাইরে বেরিয়ে পড়েন অনেকেই। কিন্তু শীতের রোদে ঘোরাফেরা যতই ভালোলাগার হোক না কেন, সানস্ক্রিন লাগানো না থাকলে আপনার ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে।

অনেকেরই ধারণা, শীতের দিনে সানস্ক্রিন লাগানোর প্রয়োজন নেই। বিশেষজ্ঞদের মতে, ত্বক সুস্থ, সজীব রাখতে গ্রীষ্মের মতো শীতেও সানস্ক্রিন লাগাতে হবে। ত্বক ধ্বংসাত্মক সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি সারা বছর ধরেই বিকিরিত হয়, এমনকি মেঘাচ্ছন্ন দিনেও।

ক্যালিফোর্নিয়ার অন্তর্গত সান্টা মনিকার ডার্মাটোলজিস্ট ডা. ক্রিস্টিন চয় কিম বলেন, ‘ত্বকের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে শীতের দিনগুলোতেও সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হবে। সানস্ক্রিনের সুরক্ষা না থাকলে ত্বকে কুচকানো ভাব, বলিরেখা দেখা দেয় দ্রুত। তাই বাইরের তাপমাত্রা যাই হোক, অবশ্যই সানস্ক্রিন লাগাতে হবে।’

গরমের দিনে শরীর থেকে ঘাম বের হয়ে সানস্ক্রিন দ্রুত দূর হয়ে যায়। যারা সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন তারা সহজে এ বিষয়টা অনুধাবন করে পুনরায় সানস্ক্রিন লাগাতে তৎপর হন। কিন্তু অনেকেই এটা অনুধাবন করেন না যে, শীতের শুষ্ক বাতাসে সানস্ক্রিন আরো দ্রুত নিঃশেষ হয়ে যায়। আমেরিকার স্কিন ক্যানসার ফাউন্ডেশনের মতে, বরফ ও কড়া বাতাস ত্বকে ব্যবহৃত সানস্ক্রিনের কার্যকারিতা কমিয়ে ফেলে ও দ্রুত নিঃশেষিত করে। তাই শীতে শুধু সকালে সানস্ক্রিন প্রয়োগ করে এটা ভাবতে পারেন না যে, সারাদিন সুরক্ষিত থাকবেন। একারণে ত্বক বিশেষজ্ঞরা এ মৌসুমে দু’ঘণ্টা পরপর ত্বকে সানস্ক্রিন মাখতে পরামর্শ দিচ্ছেন।

এসপিএফ ১৫-এর বেশি যেকোনো সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে পারেন। যদি অনেক বেশি সময় রোদে থাকার ব্যাপার থাকে, তাহলে ৩০ থেকে ৫০ এসপিএফ যুক্ত সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। রোদের সংস্পর্শে আসতে পারে এমন অঙ্গ- যেমন মুখ, গলা, হাতের অনাবৃত অংশে সানস্ক্রিন লাগান। সানস্ক্রিন লাগানোর আগে অল্প করে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। এতে ত্বকে আদ্রতা বজায় থাকবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর