Logo
শিরোনাম :
টেকনাফে অস্ত্র-গুলি-ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১ কক্সবাজার সৈকতে গোসলে নেমে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু কক্সবাজারে ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল হত্যার নেতৃত্বদানকারী আজিজ গ্রেপ্তার ১৬ মাসে ২০ লাখ ইয়াবাসহ ২৪৯ অস্ত্র উদ্ধার,আটক-৯৭২ সম্মেলন থেকে ফেরার পথে কক্সবাজারে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা উখিয়ায় আগ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবাসহ দুই রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেফতার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে ৮-এপিবিএন এর হটলাইন টেকনাফে অস্ত্র ও গুলিসহ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেফতার উখিয়ায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে অস্ত্রসহ ৬ রোহিঙ্গা গ্রেফতার উখিয়ায় এনজিও কর্মীকে কুপিয়ে জখম,মাদকাসক্ত রোহিঙ্গা আটক

রাঙ্গাবালীতে বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ / ১৯৮ বার
আপডেট সময় : সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার ছোটবাইশদিয়া ইউনিয়নে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ২০ বছরের এক তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ও ধর্ষণের অভিযোগে থানায় ধর্ষকসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। রবিবার রাতে ওই তরুণীর বাবা বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। তবে সোমবার পর্যন্ত এ ঘটনায় পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

ওই তরুণী উপজেলার একটি মাদ্রাসার ছাত্রী। মামলার আসামিরা হচ্ছে, ছোটবাইশদিয়া ইউনিয়নের কাউখালী গ্রামের রনি হাওলাদার (২৫), আলমগীর হাওলাদার (৪৫), একই ইউনিয়নের ভূইয়ার হাওলা গ্রামের মাহবুব হাওলাদার (৩৫) ও সফিক হাওলাদার (৫০)।

এজাহারে অভিযোগ করা হয়, বছর খানেক আগে ওই তরুণীর সঙ্গে অপর এক যুবকের বিয়ে হয়। কিন্তু এর মাস খানেকের মধ্যে আসামি রনি হাওলাদারের সঙ্গে ওই তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়। এতে করে বিয়ে ভেঙ্গে যায়। এরপর থেকে রনি হাওলাদার নিয়মিত ওই তরুণীর বাড়িতে আসা যাওয়া করে। এক পর্যায়ে গত ১৮ আগস্ট বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তরুণীকে অন্যান্য আসামিদের সহায়তায় রনি বাদীর মেয়েকে নিয়ে কুয়াকাটা পর্যটন এলাকায় যায়। সেখানে একটি আবাসিক হোটেলে তারা রাত যাপন করে এবং তরুণীকে ধর্ষণ করে। পরে রনি হাওলাদার সেখান থেকে সটকে পড়ে। তরুণী অন্যদের সহায়তায় বাড়ি ফিরে আসে।

এরপর থেকে রনি হাওলাদার তরুণীকে বিয়ে করতে অপারগতা প্রকাশ করে। পরে নিরুপায় হয়ে রনির বাড়িতে গিয়ে বিয়ের দাবিতে প্রায় দুই সপ্তাহ অবস্থান করে তরুণী। এনিয়ে সালিশ বৈঠকও হয়। কিন্তু কোন সুরাহা হয়নি। শেষ পর্যন্ত এনিয়ে থানায় মামলা হয়।

এ ব্যাপারে রাঙ্গাবালী থানার অফিসার ইনচার্জ আলী আহম্মেদ জানান, মামলার পর থেকে আসামিরা পলাতক। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ধর্ষিতকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পটুয়াখালী পাঠানো হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর