Logo

উখিয়ায় আবাসিক হোটেলে রোহিঙ্গা তরুণীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার 

কায়সার হামিদ মানিক / ১৮ বার
আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২ আগস্ট, ২০২২

কক্সবাজারের উখিয়ার একটি আবাসিক হোটেল থেকে এক রোহিঙ্গা তরুণী ইয়াছমিন আকতারের (১৮) মরদেহ ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি -ব্লকের বাসিন্দা আব্দুল গফুরের মেয়ে।
মঙ্গলবার সকালে উখিয়া সদর এলাকায় উপজেলা পরিষদ গেইট সংলগ্ন জলিল প্লাজার আরাফাত হোটেল নামক আবাসিক হোটেলের চতুর্থ তলার ৩০৪ কক্ষ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।
পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডির একটি দল ঘটনাস্থলের প্রাথমিক সুরতহাল শেষে তরুণীর মরদেহ উখিয়া থানায় নিয়ে যায়।
কালো বোরকা ও সাদা শার্ট পরিহিত তরুণীর মরদেহ ওড়নায় প্যাঁচানো ঝুলন্ত অবস্থায় ছিল।
আরফাত হোটেলের ম্যানেজার সাইফুল ইসলাম জানান,নুসরাত জাহান লিজা নামের এক যুবতী সন্ধ্যা সাড়ে ৫ দিকে ৩০৪ নং রুমটি ৩ ঘন্টার জন্য বুকিং করেন।সে আরও জানায়,তার বোন নাকি চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার নেমে উখিয়া আসলে তার সাথে বাড়িতে চলে যাবে বলে রুমটি বুকিং করেন।৩ ঘন্টা অতিক্রম হলে তাকে ডাকতে গিয়ে দেখি ফ্যানে লাশ ঝুলতে দেখে মালিকপক্ষকে জানালে মালিকপক্ষ উখিয়া থানায় বিস্তারিত জানালে ভিতর থেকে দরজা বন্ধ থাকায় পুলিশ লাশ উদ্ধার করতে পারেনি।
হোটেলের রেজিস্ট্রারে লিপিবদ্ধ তথ্য বিবরণী বলছে, ৩০৪নং কক্ষটি সোমবার  সন্ধ্যা ৬টায় ৩০০ টাকার বিনিময়ে ভাড়া নেন নুসরাজাহান লিজা (২৩) নামে এক তরুণী।
যেখানে তার ঠিকানা- হ্নীলা, টেকনাফ ও পেশা চাকরি উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়াও বিবরণীতে পিতার নাম জিসান মিয়া ও মাতা রোজিনা এবং একটি ফোন নম্বর উল্লেখ করা আছে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) বিপুল চন্দ্র দে বলেন, মধ্যরাতে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় পুলিশ। ভেতর থেকে রুমটি বন্ধ ছিল, সকালে সিআইডির প্রাথমিক তদন্ত শেষে লাশ থানায় রাখা হয়েছে।
বিপুল চন্দ্র দে আরও জানান, নিহত তরুণী একা ওই কক্ষটি ভাড়া নিয়েছিলেন। রেজিস্ট্রারে লিপিবদ্ধ ফোন নম্বরটি বন্ধ এবং এখনো তার কোন স্বজনের খোঁজ পাওয়া যায়নি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর