Logo
শিরোনাম :
টেকনাফে অস্ত্র-গুলি-ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১ কক্সবাজার সৈকতে গোসলে নেমে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু কক্সবাজারে ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল হত্যার নেতৃত্বদানকারী আজিজ গ্রেপ্তার ১৬ মাসে ২০ লাখ ইয়াবাসহ ২৪৯ অস্ত্র উদ্ধার,আটক-৯৭২ সম্মেলন থেকে ফেরার পথে কক্সবাজারে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা উখিয়ায় আগ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবাসহ দুই রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেফতার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে ৮-এপিবিএন এর হটলাইন টেকনাফে অস্ত্র ও গুলিসহ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেফতার উখিয়ায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে অস্ত্রসহ ৬ রোহিঙ্গা গ্রেফতার উখিয়ায় এনজিও কর্মীকে কুপিয়ে জখম,মাদকাসক্ত রোহিঙ্গা আটক

অপরাধের স্বর্গরাজ্য এখন রোহিঙ্গা শিবির! ৫ দিনে মহিলাসহ-৪ খুন

কায়সার হামিদ মানিক / ৩৫৯ বার
আপডেট সময় : সোমবার, ৫ অক্টোবর, ২০২০

উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আরসা ও মুন্না গ্রুপের দফায় দফায় সংঘর্ষে মহম্মদ ইয়াছিন (২৪) নামের আরও এক রোহিঙ্গা যুবক নিহত হয়েছে। ইয়াছিন কুতুপালং ডি-৪,/২ ওয়েষ্ট ক্যাম্পের মোহাম্মদ নাসিমের ছেলে। এর ফলে গত পাঁচদিনে ওই ক্যাম্প মহিলা-সহ চার জন খুন হল।

এ প্রসঙ্গে হেড মাঝি মহম্মদ ওসমান বলেন, রবিবার রাত থেকে আনাস ও মুন্না গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। ২ নম্বর ওয়েস্ট ডি-ব্লকে প্রায় ৫০০ জন রোহিঙ্গা ( rohingya) দুষ্কৃতী দা ও লাঠি নিয়ে ক্যাম্পের শতাধিক ঝুপড়ি ঘর ও ৫০টি দোকান ভাঙচুর করেছে। কুতুপালং রেজিস্ট্রার্ড ক্যাম্পের চেয়ারম্যান হাফেজ জালাল আহমদ জানান, আনাস গ্রুপ ও মুন্না গ্রুপের লড়াইয়ের জেরে প্রাণ বাঁচানোর জন্য কয়েক’শো রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশু কুতুপালং ক্যাম্প ছেড়ে অন্য ক্যাম্পে নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিয়েছে। বর্তমানে ক্যাম্পের অভ্যন্তরে দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। বর্তমানে সেখানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা টহল দিচ্ছে।

মিয়ানমারে হওয়া সেনা অভিযানের জেরে পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে রোহিঙ্গারা। কিন্তু, এখানেও তাদের দস্যুগিরির জেরে অতিষ্ট খোদ আশ্রয়দাতা বাংলাদেশিরাই। নারী পাচার, মাদক কারবার ও খুন-সহ সব ধরনের অপরাধের সঙ্গে জড়িত রয়েছে রোহিঙ্গারা। শান্তি বজায় রাখায় জন্য শরণার্থী শিবিরে পুলিশ ক্যাম্প পর্যন্ত বসানো হয়েছে। তাতেও তাদের বাগে আনা যাচ্ছে না। গত ৫ দিনে উখিয়ার ক্যাম্পে এক মহিলা-সহ ৪ জন খুন হয়েছে। জখম হয়েছে ২৫ জনের বেশি। এর জেরে ক্যাম্পে চরম উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কর্তব্যরত ১৪ নম্বর এপিবিএনের উপপরিদর্শক ইয়াসিন ফারুক জানান, নতুন এবং পুরনো রোহিঙ্গাদের মধ্যে বিরোধের জেরেই খুনের ঘটনাগুলি ঘটছে।

এ ব্যাপারে উখিয়া থানার ওসি আহমেদ সঞ্জুর মোরশেদ বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে আরো এক রোহিঙ্গা লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে সে জানিয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর