Logo

রামু থানায় আসতে কোনো দালালের শরণাপন্ন হবেন না, ওসি কেএম আজমিরুজ্জামান

কফিল উদ্দিন রামুঃ / ৯৪ বার
আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২০

রামু উপজেলার দুর্গম গর্জনিয়া ইউনিয়নের থোয়াঙ্গা কাটা গ্রামে UNFPA বাংলাদেশ এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশ পুলিশ আয়োজিত নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে কমিউনিটি সচেতনতা মুলক সভা রামু থানা পুলিশের সৌজন্যে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৫ ই ডিসেম্বর) বিকাল ৪ টায় গর্জনিয়া আদর্শ শিক্ষা নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সিনিয়র শিক্ষক জয়নাল আবেদীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন রামু থানার অফিসার ইনচার্জ এ কে এম আজমিরুজ্জামান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে রামু থানা পুলিশের সকল সদস্য সর্বদা প্রস্তুত। পাশাপাশি সকল জনসাধারণের জন্য পুলিশের সেবার দরজা সব সময় খোলা থাকবে। থানায় আসতে কোন ধরনের দালাল নিয়ে আসতে হবেনা উল্লেখ করে আরো বলেন সেবার জন্য প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে একজন উপপরিদর্শক নিয়োগ করা রয়েছে সেখানে গেলেই পুলিশের মাধ্যমে আপনার সঠিক বিচারের ব্যবস্থা করে দিবেন।

তিনি আরো বলেন,নারীর প্রতি শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন রোধ, ইভটিজিং, বাল্য বিয়ে, মাদক, সন্ত্রাস, রাতারাতি কোটিপতিদের কোন ধরনের ছাড় দেওয়া হবেনা। এবিষয়ে এলাকার সহযোগিতা কামনা করেন এবং সকলকে মোবাইল নং টি নোট করে দিয়ে বলেন যে কোন বিষয়ে তথ্য দিলে তাদের পরিচয় গোপন রাখা হবে।

গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোক্তা তানজিদ রায়হানের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছৈয়দ মোঃ নজরুল ইসলাম, গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ীর ইনচার্জ মোঃ ফরহাদ আলী, এস আই রুহুল আমিন মুন্সী, এস আই নাজমুল ইসলাম(রামু থানার নারী ও শিশু ডেস্কে দায়িত্ব প্রাপ্ত), সমাজ সেবক আবদুল আলী, ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য আবদুল জব্বার, নুরুল ইসলাম , কবির আহমদ, আওয়ামিলীগ নেতা নুরুল আমিন, আবু নাছের প্রমুখ।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে এলাকার শত শত নারী পুরুষ সহ থোয়াঙ্গাকাটা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সৌজন্যে উপস্থিত জনসাধারণের মাঝে সাবান, মাক্স, হ্যান্ডসেনিটাইজার সহ করোনা নিধন সামগ্রী বিতরণ করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর